বুধবার-১৩ নভেম্বর ২০১৯- সময়: রাত ১২:০৬
ঘোড়াঘাটে বানিজ্যিক ভাবে মাল্টা বাগান করে ব্যাপক সাফল্য পেয়েছে নাটোরের প্রতিবন্ধি প্রবীণ দম্পত্তি ভাতা নয়, চায় মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি নবাবগঞ্জে ইঁদুর কেটে ফেলছে কাঁচা আমন ধানের রোপা উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার আশংকা কমেছে সময় ও দুর্ঘটনা,ঝালকাঠিতে ১৪ কি.মি মহাসড়ক নির্মাণ, স্বস্তিতে দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের যাত্রীরা রাজাপুরে ব্যক্তি উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের জন্য ব্রীজ নির্মান, বই ও বেঞ্চ প্রদান মুক্তিযুদ্ধে গুলিবিদ্ধ প্রসঞ্জী রায়এর পাশে- এমপি গোপাল ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল হাসপাতালে লাইভ ওয়ার্কশপে বাংলাদেশে সবচেয়ে বড় রিং (স্টেন্ট) সফল প্রতিস্থাপন সম্পন্ন ধামইরহাটে তিন ভূয়া ডিবি পুলিশ আটক সম্মানি না পেয়ে চিকিৎসা দিতে এলেন হারবাল এ্যাসিস্টেন্ট!

শোক সংবাদ newsdiarybd.com:

নবাবগঞ্জের সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন লাবুর দাফন সম্পন্ন

এম.রুহুল আমিনঃ-২২ডিসেম্বর ২০১৮ বিকেল দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সাবেক সাধারন সম্পাদক এবং নবাবগঞ্জ মহিলা ডিগ্রী কলেজের অফিস সহকারী আনোয়ার হোসেন লাবু (৫৫) রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ………… রাজেইন।

মৃত্যুকালে স্ত্রী, ২কন্যা, ১ পুত্র, আত্নীয়,বন্ধু-বান্ধব সহ অসংখ্য গুনগ্রাহি রেখে যান। রোববার বাদ যোহর নবাবগঞ্জ সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে জানাযা শেষে তার নানার বাড়ী দোমাইল গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

আনোয়ার হোসেন লাবু দিনাজপুর থেকে প্রকাশিত দৈনিক জনমত ও রংপুর থেকে দৈনিক যুগের আলো পত্রিকায় কাজ করেছিলেন।

তার মৃত্যুতে নবাবগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছে। তার নামাজের যানাজায় এলাকার রাজনৈতিক, শুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

জামিল আহমেদ ভোলার মৃত্যুতে জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের শোক

স্টাফ রিপোর্টার- জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের নির্বাহী সদস্য জামিল আহমেদ ভোলা ২ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা ৫ মিনিটে আকস্মিক ভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। (ইন্না……….রাজিউন)

জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের সভাপতি ড. হাসনাইন আখতার হক, সহ-সভাপতি ত্বাসীন আক্তার হক (ডেল) ও ডাঃ এ.এইচ.এম শফিকুর রহমান তরুণ, সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আজাদ সহ নির্বাহী কমিটির সকল সদস্যবৃন্দ বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, সমাজসেবক, রাজনীতিবিদ, এক সময়ের ভালো ক্রিকেট খেলোয়াড় ও জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য জামিল আহমেদ ভোলার মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোক জ্ঞাপন করেন।

শোক বার্তায় মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়। শোক বার্তায় বলা হয় জামিল আহমেদ ভোলা দিনাজপুরের সমাজ সেবার ক্ষেত্রে এক অনন্য অবদান রেখে গেছেন। তার কর্মময় জীবনের অনেক গুলো ক্ষেত্রের মাঝে দিনাজপুরের স্বাস্থ্য সেবায় তার অবদান কৃতজ্ঞতার সাথে সকলে মনে রাখবে। তিনি ছিলেন একজন উদ্যোগী, সদালাপী ও সকলের কাছে প্রিয় আপনজন।

স্বাস্থ্য সেবার পাশাপাশি সামাজিক, খেলাধূলা, ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে তার সফল নেতৃত্ব দিনাজপুরবাসী কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ রাখবে। তার অকাল মৃত্যুতে দিনাজপুরবাসী একজন পরম আপন জনকে হারালো। পরিশেষে শোক বার্তায় আবারও মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের কাছে তার রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়।

জামিল আহমেদ ভোলার স্মরণে আগামী ৬ই ডিসেম্বর সকাল ১১ টায় জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশন চত্বরে এক স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

উক্ত অনুষ্ঠানে ফাউন্ডেশনের সকল প্যাট্রন-আজীবন-সাধারণ সদস্য, কনসালটেন্টবৃন্দ, মেডিকেল অফিসারসহ সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিত থাকার জন্য জিয়া হার্ট ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আজাদ জানিয়েছেন।

বড়াইগ্রাম ইউপি চেয়াম্যানের মাতার ইন্তেকাল

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি-নাটোর পিবিএস-২ এর সাবেক চেয়ারম্যান আফতাব উদ্দিন কবিরাজ (৬৫) কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে গত মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে এনায়েতপুর হাসপাতালে চিকৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি—- রাজিউন)।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, আত্মীয়স্বজন সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার আরজী ভবানীপুর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।

মঙ্গলবার বিকেলে আরজী ভবানীপুর গ্রামে তার নিজ আম বাগানে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

দিনাজপুর শিল্প ও বনিক সমিতির সাবেক সহ-সভাপতি আনোয়ারুল ইসলামের ইন্তেকাল

স্টাফ রির্পোটার, দিনাজপুর- দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি ও শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আনোয়ারুল ইসলাম ১১ নভেম্বর রবিবার আনুমনিক ১.৩০ মিনিটে ভারতের দিল্লীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন।

ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। তিনি মাতা, স্ত্রী, ১ পুত্র ও ১ কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন।

তার মৃত্যুতে দিনাজপুর সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিমসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যাক্তি গভীর শোক প্রকাশ ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে।

শোক বার্তায় বলেন, আনোয়ারুল ইসলামের এই অকাল মুত্যতে দিনাজপুরবাসী হারালো একজন প্রকৃত রাজনীতিবীদ ও সমাজসেবীকে। যা পুরন হবার নয়। তিনি সাহসের সাথে রাজনীতি করেছেন। দুঃখী, গরীব ও মেহনতী মানুষের সঙ্গী ছিলেন।

নেতৃবৃন্দ শোকাহত পরিবারদের এই শোক ধৈর্য্য ধারনের আহবান জানান এবং আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

শোক জানিয়েছেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরুপ বকসী বাচ্চু ও সাধারন সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ইদ্রিস আলী, বালুবাড়ী চাঁদেরহাট সমিতির সভাপতি শাহ রেজাউল রহমান হিরু প্রমুখ।

নওগাঁর ধামইরহাটের চেয়ারম্যান ও ক্রীড়া সংগঠক মনা চৌধুরী আর নেই

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি-নওগাঁর ধামইরহাটের জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান ও ক্রীড়া সংগঠক মোতাব্বের রহমান চৌধুরী মনা (৬২) আর নেই। গত শুক্রবার বিকেলে উপজেলার ফার্শিপাড়া নিজ গ্রামের মসজিদে আসর নামাজ আদায় করে বাড়ী ফেরার পর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়।

তাৎক্ষনিক তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেকিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মঙ্গলবাড়ী নামক স্থানে ইন্তেকাল করেন, (ইন্নালিল্লাহে—রাকেউজন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী,১ছেলে,১মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

শনিবার সাড়ে ৪টায় ফার্শিপাড়া ফুটবল মাঠে তাঁর নামাজের জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। মরহুম মোতাব্বের রহমান চৌধুরী উপজেলার ফার্শিপাড়া জমিদার পরিবারের অন্যতম জমিদার সাবেক এমএনও মরহুম মোজাফ্ফর রহমান চৌধুরীর ছোট ছেলে। তিনি স্থানীয় উমার ইউনিয়ন পরিষদের ৩বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন।

এছাড়া ৮০ দশকে নওগাঁর জেলার জনপ্রিয় ফুটবল ও ব্যাটমিন্টন খেলোয়াড় ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি এলাকায় একজন ক্রীড়া সংগঠক ছিলেন। সকলের সাথে তিনি হাসিমুখে কথা বলতেন। ছোট বড় সকলে তাকে মনা চেয়ারম্যান বলে ডাকত।

ধামইরহাট সরকারী এম এম কলেজ,ধামইরহাট সফিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়,চকচন্ডী মোজাফ্ফর রহমানিয়া ঈদগা মাঠসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটিতে দায়িত্ব পালন করেন।

মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি উপজেলা বিএনপির সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তাঁর মৃৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। দাফন অনুষ্ঠানে নওগাঁ জেলা সদর,পতœীতলা উপজেলা,জয়পুরহাটসহ বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

যশোরে সাংবাদিক নেতা নোভার মৃত্যুতে তিনদিনের কর্মসূচি ঘোষণা

যশোর প্রতিনিধি- যশোরে সাংবাদিক নোভা খন্দকারের লাশ উদ্বার করা হয়েছে।পুলিশ সকাল ১০টার দিকে তার লাশ উদ্বার করেছে। তিনি শহরের বেজপাড়া কবরস্থান এলাকার আহসান হাবীবের ছেলে। আসরবাদ জানাজা শেষে বেজপাড়া করবস্থানে দাফন করা হয়েছে।

পিতা আহসান হাবীব জানান, সোমবার ভোরে ফজরের নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে যায়। ফিরতে দেরি হওয়ায় তার বোন ঘর থেকে বের হয়। এসময় সে ঘরের পাশে নির্মাধীন ঘরের একপাশে নোভাকে ঝুলতে দেখে চিৎকার দেয়। প্রতিবেশীরা ছুটে এসে এবং পুলিশকে খবর দেয়।

কোতয়ালী মডেল থানার এসআই শামীম জানান, স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে সকাল ১০টার দিকে নির্মাণাধীন ঘরে গলায় গামছা দেয়া অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তার পরনে ছিল টাউজার।

লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। গলায় ফাঁস দিয়ে হয়তো সে আত্মহত্যা করতে পারে বলে ধারণা সূত্রে জানান ওই পুলিশ কর্তা। ময়নাতদন্তের রিপোার্ট আসলে জানা যাবে কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে।

বাবা আহসান হাবীব জানান, নোভা খন্দকারের নাজ্জার হাবিব নামে ৭বছরের পুত্র সন্তান আছে। সে পবনায় মায়ের সাথে থাকে এবং তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ে। আর্থিক কারণে নোভার স্ত্রী শম্পা একটি মাইক্রো ফাইনান্স কোম্পানিতে চাকরীর সুবাদে সে পাবনায় থাকে।

নোভা খন্দকার ঢাকায় বিভিন্ন পত্রিকায় কাজ করে যশোরে আসেন এবং দ্যা রিপোর্ট কাজ করতে থাকেন। সেখান থেকে চলে আসার আর্থিক অনটনে ভুগতে থাকেন। দীর্ঘদিন বেকার থাকার কারণে তিনি মানসিক অবস্থা বিপর্যয়ের মধ্যে পড়ে। তিনি এক সময় প্রেসক্লাব যশোরের সদস্য ছিলেন। এছাড়া তিনি সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সাবেক দপ্তর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

সহকর্মীরা জানান,বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে নোভা খন্দকারের লাশ সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সামনে নিয়ে আসা হয়। সেখানে প্রেসক্লাব যশোরের কর্মকর্তারা এক মিনিট নিরবতা পালন করেন।

এরপর সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোর, জাগপা যশোর জেলা কমিটি, দৈনিক লোক সমাজ পরিবার, সাপ্তাহিক রেড নিউজ পরিবার, দৈনিক আমার একুশ পত্রিকার যশোর ব্যুরো প্রধান হারুন অর রশিদ, বন্ধু ফোরাম নোভা খন্দকারের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানান।

আসরবাদ বেজপাড়া তালতলা জামে মসজিদের সামনে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর বেজপাড়া গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এদিকে, ইউনিয়নের সদস্য নোভা খন্দকারের মৃত্যুতে তিনদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোর। ইউনিয়নের দপ্তর সম্পাদক ইকতিয়ার রহমান ইমনের প্রেরিত প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সাবেক দপ্তর সম্পাদক দানিয়েল হাবিব অঞ্জন ওরফে নোভা খন্দকারের মৃত্যুতে সংগঠনটির পক্ষ থেকে তিন দিনের শোক কর্মসুচি গ্রহন করা হয়েছে।

কর্মসুচির প্রথমদিন সোমবার বিকেলে প্রেসক্লাব যশোরে সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের কার্যালয়ের সামনে মরহুমের কফিনে সংগঠনের পক্ষ থেকে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। আগামীকাল ২৩ অক্টোবর মঙ্গলবার কালোব্যাজ ধারন ও ২৬ অক্টোবর শুক্রবার সকাল ১১ টায় প্রেসক্লাব যশোরে মরহুমের স্মরণে স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

শোকাহত বিরামপুর সাংবাদিক সমাজ

মোঃ আবু সাঈদ- দিনাজপুরের বিরামপুর প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং দৈনিক উত্তর বাংলা পত্রিকার বিরামপুর উপজেলা প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত হওয়ায়, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সকল সাংবাদিকদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নিহত সাংবাদিক আব্দুল হাকিম বিরামপুর পৌর শহরের কলেজ বাজার চাঁদপুর মহল্লার বাসিন্দা।

অনলাইন নিউজ ডায়েরী বিডি ডটকমের সম্পাদক এবং বিরামপুর প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মাহমুদুল হক মানিক শোকাহত কন্ঠে বলেন, আব্দুল হাকিম ভাই একজন  সাহসী সাংবাদিক ছিলেন।

তিনি গত বুধবার সড়ক দূর্ঘটনায় গুরুতর আহত হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করা হয়, চিকিৎসা ধীন অবস্থায় বৃহঃবার মৃত্যু ঘটে। নিহতের আত্বার মাগফেরাত কামনা করে শোক সমন্ত পরিবারের প্রতি সম বেদনা ঙ্গাপন করেন।

এসময় আরো শোক প্রকাশ করেন, দিনাজপুর সাংবাদিক কল্যান ট্রাষ্টের সভাপতি আকরাম হোসেন, সাংবাদিক আবু সাঈদ, ডাঃ নুরুল হক, মিজানুর রহমান, মাহাবুর রহমান, হাফিজ উদ্দিন সরকার, শাহিনুর রহমান, সামিউল আলম, নজরুল ইসলাম, মোবারক হোসেন, মশিউর রহমান, রায়হান কবির চপল, আব্দুর রাজ্জাক, মুহাদ্দিস এনামুল হকসহ সকল স্থরের সাংবাদিক বিন্দু।

আগৈলঝাড়া ছাত্রদল সাংগঠনিক সম্পাদক বাচ্চুর মৃত্যুবার্ষিকী

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি-বৃহস্পতিবার ৪ অক্টোবর,  বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. বাচ্চু হাওলাদারের ৬ষ্ঠ মৃতুবার্ষিকী।

সে দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পরে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় ২০১২ সালের এই দিনে মৃত্যুবরন করে।

তার লাশ নগরবাড়ি গ্রামের নিজ বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে দায়করা হয়েছিল। তার মৃতুবার্ষিকী উপলক্ষে নিজবাড়ি উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের নগরবাড়ি গ্রামে দিন-ব্যাপী কোরান খতম দোয়া-মিলাদ ও মোনাজাত আয়োজন করা হবে।

দোয়া-মিলাদ অনুষ্ঠানে দলের নেতৃবৃন্দ, আত্বীয়-স্বজনসহ বিভিন্ন শ্রেণীর লোকজন উপস্থিত থাকবেন।

বড়াইগ্রামে বাসচাপায় নিহত আ’লীগ নেতা-কর্মীর দাফন সম্পন্ন

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি-নাটোরে বড়াইগ্রাম উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল আলম শ্যাম (৬৬) ও কর্মী শাহজাহান আলী (৫৮) বাস চাপায় নিহত হয়েছেন এবং তাদের দাফন সোমবার বেলা সাড়ে ১০টায় সম্পন্ন হয়েছে।

রোববার বিকেলে সাড়ে ৫টার দিকে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার গজারি ব্রীজ এলাকায় ওই দূর্ঘটনা ঘটে। এ খবর পৌঁছালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ব্যক্তিগত কাজে সকালে মোটরসাইকেলে শামসুল আলম শ্যাম ও শাহজাহান আলী সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় গিয়েছিলেন।

সেখান থেকে ফেরার পথে গজারিয়া ব্রীজ এলাকায় অজ্ঞাত একটি বাস পেছন থেকে ধাক্কা দিলে তারা সড়কে ছিটকে পড়ে বাসের চাকায় পিষ্ঠ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

নিহত শামসুল আলম শ্যাম উপজেলার বড়াইগ্রাম ইউনিয়নের মাড়িয়া গ্রামের মৃত জহির উদ্দিনের ছেলে এবং শাহজাহান আলী ইকড়ি গ্রামের লোকমান আলীর ছেলে।

বড়াইগ্রাম -গুরুদাসপুর আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক মোঃ আব্দুল কুদ্দুস বলেন, শামসুল আলম শ্যাম ও শাহজাহান আলী দলের নিবেদিত কর্মী ছিলেন। তিনি নিহতদের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন।

নিহত শামসুল আলম শ্যাম ও শাহজাহান আলীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। তাদের মধ্যে শামসুল আলম শ্যামের সকাল সাড়ে ১০ ঘটিকায় উপজেলার বাজিতপুর মাদ্রাসা মাঠে জানাযা অনুষ্ঠিত হয় এবং বাজিতপুর সামাজিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

উক্ত জানাযায় উপস্থিত ছিলেন, গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজ, বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও নাটোর জেলা আ’লীগ সাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী, বড়াইগ্রাম উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আব্দুল জলিল প্রামানিক, সাধারন সম্পাদক এ্যাড. মিজানুর রহমান মিজান, নাটোর জেলা জাসদ সাধারন সম্পাদক ডিএম আলম, বড়াইগ্রাম ইউনিয়ন আ’লীগ সাধারন সম্পাদক মাসুদ রানা মান্নান, বড়াইগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মমিন আলী সহ এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ।

দিনাজপুর সদর চেয়ারম্যান ফরিদুল ইসলামের মাতার ইন্তেকাল

স্টাফ রির্পোটার,দিনাজপুর- দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ফরিদুল ইসলামের মাতা আলহাজ্ব ফজিলাতুন নেছা ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি……….রাজিউন)।

০৪ এপ্রিল বুধবার দিনাজপুর শহরের ঈদগাহ বস্তি নিজ বাসভবনে বার্ধক্যজনিত কারনে সকাল আনুমানিক ১০ টায় ইন্তেকাল করেন।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯০। তিনি ২ ছেলে ও ৩ মেয়ে, নাতী-নাতনীসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন।

ফজিলাতুন নেছার মৃত্যুতে দিনাজপুর সদর ৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম গভীর শোক প্রকাশ ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। তিনি মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেছেন।

মরহুমা ফজিলাতুন নেছার প্রথম জানাযা নামাজ শহরের ঈদগাহ বস্তি মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। বিকেল সাড়ে ৫টায় ৬নং আউলিয়াপুর ইউনিয়নের মহববতপুর সুখান দিঘী মাঠে দ্বিতীয় জানাযা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন কাজ সমাপ্ত হয়।