বৃহস্পতিবার-২১ নভেম্বর ২০১৯- সময়: রাত ১:০২
বিরামপুরে অসহায় ও দরিদ্রদের বিনামূল্যে চোখের অপারেশন বিরামপুরে সাংবাদিকের বাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় আটক-১ ৭ কেজি চালের মূল্যে মিলছে ১কেজি পেয়াজ বিরামপুরের বাজারে চিকিৎসা সেবা দিয়ে মানব সেবা করতে চাই-পর্যটন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব হুমায়ুন কবীর বিরামপুরে নেশার ইনজেকশন ও ফেন্সিডিলসহ আটক-৩ হিলি চেকপোস্টে বিজিবি’র গোয়েন্দা সদস্যের বিরুদ্ধে সাংবাদিককে হয়রাণীর অভিযোগ বিরামপুরে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত বিরামপুরে প্রকল্প সমাপনী কর্মশালা গরীব ও অসহায় মানুষকে চিকিৎসা সেবা দিতে পারলে আমি শান্তি পাই জনবল ও সরঞ্জামের অভাবে আজও চালু হয়নি, নবাবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশন

কুড়িগ্রামে সুপ্ত প্রতিভা অন্বেষণের গ্রান্ড ফিনালে

প্রহলাদ মন্ডল সৈকত, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি-‘শেকড়ের টানে ছুটে চল…’ এমন শ্লোগানের মধ্যদিয়ে কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে ‘সুপ্ত প্রতিভা অন্বেষণ’ সংগীত প্রতিযোগিতার গ্রান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সন্ধ্যায় বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে ভুরুঙ্গামারী মুক্ত মঞ্চে মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে গ্রান্ড ফিনালের উদ্বোধন করেন, কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মোছা: সুলতানা পারভীন।

এ সময় ইউএনও এস.এইচ.এম মাগফিুরুল হাসান আব্বাসীর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সিনিয়র তথ্য অফিসার মো: হুমায়ূন কবীর, উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুন্নবী চৌধুরী খোকন, ভুরুঙ্গামারী শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক, সরকার রকীব আহমেদ জুয়েল, টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরাম সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আলমগীর প্রমূখ।

প্রতিযোগিতার আহ্বায়ক মাঈদুল ইসলাম মুকুল জানান, ‘শেকড়ের টানে ছুটে চল…’ এ শ্লোগানের মধ্যদিয়ে ২মাস আগে সুপ্ত প্রতিভা অন্বেষন প্রতিযোগিতা- ২০১৮ শুরু হয়।

উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে প্রায় ২শতাধিক শিল্পী এই গানের প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। ৪টি রাউন্ড শেষে গ্রান্ড ফিনালেতে ওঠে সেরা ১২জন প্রতিযোগি।

গ্রান্ড ফিনালে প্রতিযোগিতা শেষে চ্যাম্পিয়ান হয় হান্নান সরকার, ১ম রানারআপ রাজু আহমেদ এবং ২য় রানারআপ নির্বাচিত হয় মিজানুর রহমান।

এই প্রতিযোগিতায় প্রধান বিচারক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন ভুরুঙ্গামারী শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক সরকার রকীব আহমেদ জুয়েল।

অন্যান্য বিচারক মধ্যে ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান বাবু, সংগীতজ্ঞ নিশাত আহমেদ, চৌধুরী শারমিন শামস মনি ও মাসুদ আল করিম।

১২জন শিল্পীর গানের আগে তাদের নিয়ে ইউসুফ আলমগীরের নির্মিত বিশেষ তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

উল্লেখ্য সেরা ১২জনের মধ্যে বিশেষ পুরস্কারপ্রাপ্ত বাকি শিল্পীরা হলেন আমজাদ হোসেন, হাফিজুল ইসলাম, মিলন মাহমুদ জয়, ইসরাত জাহান মিম, স্বপন রহমান, লাবব শাহরিয়ার সিয়াম, মনিকা আক্তার মৌ, রোকনুজ্জামান রোকন ও আনিকা নাওয়ার অন্বয়ী।

print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *