রবিবার-২৯ নভেম্বর ২০২০- সময়: রাত ৩:৫৭
পর্যটকদের জন্য নয়নাভিরাম ‘সাজেক ভ্যালি’ শীতে বাঙ্গালীর ঐতিহ্য ভাপা পিঠা পাঁচবিবিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের সমাপণী কাউন্সিলর পদে নির্বাচিত হলে মাদকমুক্ত ও অসমাপ্ত কাজ করব-আতিয়ার রহমান মিন্টু নেশার টাকার জন্য ২২ দিনের নবজাতককে কুপিয়ে হত্যা ঘোড়াঘাটে হেলথ এসোসিয়েশনের কর্মবিরোতি বন্ধ রাস্তা অবমুক্ত করলেন ইউএনও ভাতা বন্ধ ভাতা ভোগীরা মানবতার জীবনযাপন বিরামপুরে ৭২ বছরের বৃদ্ধ’কে ঔষধ ও আর্থিক সহায়তা দিলেন-ওসি মনিরুজ্জামান কোভিট-১৯ পরিস্থিতিতে মোরেলগঞ্জে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেয়া হচ্ছে স্কুল ফিডিং বিস্কুট

Daily Archives: November 26, 2020

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ভূগর্ভ থেকে কয়লা উত্তোলনের কারণে ৩ শত একর জমি তলিয়ে বিশাল জলাশয়ের সৃষ্টি

মোঃ আফজাল হোসেন-দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ভূগর্ভ থেকে কয়লা উত্তোলনের কারণে পূর্ব দিকের ৩ শত একর জমি তলিয়ে গিয়ে বিশাল জলাশয়ের সৃষ্টি হয়।

ক্ষতিগ্রস্থ হয় ফুলবাড়ী থেকে বড়পুকুরিয়া বাজার হয়ে খয়েরপুকুর হাট যাওয়ার রাস্তাটি।

বাংলাদেশের জ্বালানী চাহিদা মেটানোর জন্য সরকার দেশের উত্তর অঞ্চলের দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার হামিদপুর ইউনিয়নের বড়পুকুরিয়া নামক স্থানের নামকরণ করে প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ১৯৯৪ সালের ২৭ জুন উদ্বোধন করে এর যাত্রা শুরু করেন তৎকালীন সরকার । ২০০৩ সালে ২৩ এপ্রিল খনি থেকে কয়লা উত্তোলনের উদ্বোধন হয়।

১৯৯৪ সালের ৭  ফেব্রুয়ারী পেট্রবাংলা ও গণচীনের চায়না ন্যাশনাল মেশিনারী ইনপোর্ট এন্ড এক্সপোর্ট করপরোশন এর মধ্যে খনির সকল কার্যক্রম করার জন্য চুক্তি স্বাক্ষর হয়। শুরু হয় পুরোদমে শুড়ঙ্গ পদ্ধতিতে কয়লা তোলার কার্যক্রম।

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিটি ৬.৬৮ বর্গ কিলোমিটার। কয়লার ক্ষেত্রে ১১৮ থেকে ৫০৬ মিটার গভীরতায় ৬টি স্তরে কয়লার মজুদ ৩৯০ মিলিয়ন টন।

এলাকার মানুষ প্রথমে বুঝতে পারেনি শুড়ঙ্গ পথে কয়লা উত্তোলন করলে তাদের কী ক্ষতি হবে। অবশেষে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি এলাকার ১২ থেকে ১৪টি গ্রামের মানুষ যখন বুঝতে পারল যে কয়লা তোলার কারণে বাড়ীঘর, ফসলি জমি, স্কুল কলেজ, কবরস্থান, মসজিদ, মন্দির সহ বিভিন্ন স্থাপনা ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে তখন এলাকর মানুষ গত ৭ বছর আগে দলবদ্ধ হয়ে ক্ষতিপুরন চেয়ে আন্দোলন শুরু করে।

আন্দোলন শুরু করলে সরকার খনি এলাকর ৩ কি.মি এলাকা অধিগ্রহণ ও আড়াই হাজার গ্রাম বাসীকি পুন:বাসনে মাইনিং সিটি নামক একটি শহর স্থাপন ও জমি ও ঘরবাড়ীর ক্ষতি পুরন দিতে চুক্তিবদ্ধ হন। এ জন্য খনি কর্তৃপক্ষ জ্বালানী মন্ত্রনালয়ে ২২৮ কোট টাকা ব্যয় হতে পারে মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

তৎকালীন সময় পরিকল্পনা বাস্তবায়নে খনি কর্তৃপক্ষ সরকারের পরিকল্পনা নিয়ে কাজ শুরু করেন। গ্রামবাসীদের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়। খনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল ২-৩ বছরের মধ্যে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি নিয়ে বড় পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা সম্ভাব। কিন্তু তা হয়নি।

পরবর্তীতে ৮ দফা সুপারিশ অনুমোদন করেন সরকার। প্রায় সাড়ে ৬ শত একর জমি খনি কর্তৃপক্ষ অধিগ্রহণ করেন। অধিগ্রহণ এলাকা থেকে ৭টি গ্রামের মানুষ ক্ষতিপুরন নিয়ে অন্য স্থানে চলে গেছে। এখন শুধু এলাকায় ধ্বংস স্তুপ পড়ে রয়েছে। সেখানে গিয়ে দেখা যায় কয়লা উত্তোলনের কারণে বিশাল জলাশয়।

সেই জলাশয়ে এলাকার মানুষ মাছ মারছেন। পাশ্বে রয়েছে একটি রাস্তা সেই রাস্তাটিও চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। দেখে মনে হয় কোন কালে এখানে একটি বিশাল বিল ছিল। এখন এলাকা প্রায় ধ্বংস। ক্ষনি কর্তৃপক্ষ আবারও উত্তর ও দক্ষিণ দিয়ে কয়লা উত্তোলনের জন্য জমি অধিগ্রহণ করছে। মাইনিং সিটি এই এলাকায় আর হলো না।

এলাকাটি এখন জলাশয়। পরিবেশের ক্ষতি হয়েছে। আবাদি জমি ও প্রায় ধ্বংস হয়ে গেছে। এলাকার মানুষ ছিন্ন ভিন্ন হয়ে গেছে। ক্ষতিপুরণ দিলেও পরিবেশ ফিরে আসবে না। কয়লা উত্তোলন করে সরকার লাভবান হলেও এলাকার মানুষের অফুরন্ত ক্ষতি হয়েছে।

অন্যান্য খনি গুলি ভূগর্ভস্থ পদ্ধতিতে করতে গেলে এমনি ক্ষতি হবে ঐ এলাকার। তাই বড়পুকুরিয়া এলাকার মানুষ সময়িক লাভবান হলেও অনেকে ক্ষতিগ্রস্থ। একারণে এলাকার মানুষ আর খনি চায় না।

নবাবগঞ্জ নির্বাহী অফিসার নাজমুন নাহার নিজেই মাটি কেঁটে শ্রমিকদের উৎসাহ যোগালেন

নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর ) থেকে –শনিবার দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসূচি কর্মসংস্থান প্রকল্পের অধীনে ৩৪টি প্রকল্পের গ্রহণ করেছে উপজেলাপ্রশাসন।

উপজেলার পুটিমার ইউনিয়নে প্রকল্পের কাজের উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুন নাহার নিজেই মাটি কেটে শ্রমিকদের উৎসাহ দিয়ে প্রকল্প কাজের উদ্বোধন করেছেন।

নবাবগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা পিআইও রেফাউল আজম জানান প্রকল্পের জন্য ১কোটি ৫৪ লাখ টাকা বরাদ্দ ৩৪ টি প্রকল্পের মাধ্যমে উন্নয়ন কাজ করা হবে এ সময় নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মুসলমান পারুল বেগম ৫ নং পুটিমারা ইউপি চেয়ারম্যান সরোয়ার হোসেন সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহি অফিসার বলেছেন সরকারের অর্থায়নে প্রকল্পের কাজ নিয়ম অনুযায়ী সমাধা করা হবে কোন ধরনের অনিয়ম সহ্য করা হবে না।

নবাবগঞ্জে জাতীয় সমবায় দিবস পালনে আলোচনা সভা

নবাবগঞ্জ দিনাজপুর থেকে- এম এ সাজেদুল ইসলাম সাগর,শনিবার দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে ৪৯ তম জাতীয় সমবায় দিবস পালনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহি অফিসার মুসলমান নাজমুন্নাহারের সভাপতিত্বে উপজেলা মিলনায়তনে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পারুল বেগম কবুলি পাড়া পানি ব্যবস্থাপনা

সমিতির সভাপতি মোগরপাড়া ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ শহিদুল ইসলাম, সফল মৎস্য চাষী জামিনুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন, আলোচনা সভায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেছেন সমবায়ের মাধ্যমে একত্রিত হয়ে উন্নয়নমূলক কাজ করে যেতে হবে।

নবাবগঞ্জে ঐতিহাসিক বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত

নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি-দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ঐতিহাসিক বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত হয়েছে ।

শনিবার বিকালে উপজেলা বিএনপির আয়োজনে হাসপাতাল রোড সংলগ্ন চাতালে দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলার বিএনপির সহ-সভাপতি মোঃ ইউনুস আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক সাবেক এ জে এম সাহাবুদ্দিন সুজন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মোঃ কামরূজ্জামান বাবু, মোঃ এনামুল হক, মোঃ আজাদ রহমান, মোঃ আনোয়ারুল আজিম আনু, সহ-সাধারন সম্পাদক মোঃ ইকবাল হোসেন, মোঃ শাহজাহান চৌধুরী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রেজাউল করিম স্বাধীন, যুবদলের যুগ্ন-আহ্বায়ক মোঃ মনিরুজ্জামান মনির, স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক মোঃ আনারুল ইসলাম, মহিলা দলের সভানেত্রী মোছাঃ শাবানা বেগম, সাধারণ সম্পাদক মোছাঃ লিপি বেগম ছাত্রদলের মুক্তি মাহফুজ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। শেষে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত।

বাসদ’র ৪০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

প্রহলাদ মন্ডল সৈকত, রাজারহাট প্রতিনিধি-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ’র ৪০তম ও মহান রুশ বিপ্লবের ১০৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কুড়িগ্রামে র‌্যালি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকালে শহরের জিরো পয়েন্ট ঘোষপাড়া থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

পরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে জেলা বাসদের সমন্বয়ক কমরেড ফুলবর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাসদ গাইবান্ধা জেলা সমন্বয়ক কমরেড গোলাম রব্বানী, কুড়িগ্রাম জেলা বাসদের সদস্য মোনাব্বর হোসেন মিন্টু, সাঈদ আখতার আমীন, অ্যাডভোকেট শামসুল হক সরকার, প্রভাত কুমার বর্মণ, সিপিবি কুড়িগ্রাম জেলা কমিটির সাবেক সভাপতি মাহবুবুর রহমান মোমিন প্রমুখ।

রাজারহাটে জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

প্রহলাদ মন্ডল সৈকত- বঙ্গবন্ধুর দর্শন সমবায়ে উন্নয়ন, এ প্রতিপাদ্যকে নিয়ে কুড়িগ্রামের রাজারহটে ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় ও সমবায়ী পতাকা উত্তোলন, আলোচনা সভা, ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

রাজারহাট উপজেলা নির্বহিী অফিসার নূরে তাসনিম এর সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, রাজারহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদ ইকবাল সোহরাওর্দ্দী।

উপজেলা সমবায় বর্মকর্তা মোঃ শাহ আলম এর সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য দেন, বিশিষ্ট সমবায়ী ও প্রেসক্লাব রাজারহাট সভাপতি সেকেন্দার আলী বাবলু, সমবায় সুহৃদ প্রেসক্লাব রাজারহাটের সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম, সমবায়ী মোঃ আব্দুস সালাম, রাসেল আহমেদ, খোরশেদ আলী, রিপা আক্তার, নজরুল ইসলাম ও জাহেরুল ইসলাম। শেষে শ্রেষ্ঠ সমবায়ী ও সমিতি কে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালন

প্রহলাদ মন্ডল সৈকত, রাজারহাট  প্রতিনিধি-কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপি আলোচনা সভা ও মিলাদ মহাফিলের মাধ্যমে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালন করেছে।

এ উপলক্ষে সকালে কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির কার্যলয়ে সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু বকর সিদ্দিকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অংশ নেন সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান রানা, সহ সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, যুগ্ম সম্পাদক অধ্রাপক হাসিবুর রহমান হাসিব, ব্যারিস্টার রবিউল আলম, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর বিপ্লব প্রমূখ।

পরে মিলাদ মাহফিল শেষে দেশ ও জাতির শান্তি কামনায় দোয়া করা হয়।

ধামইরহাটে বিদ্যুৎস্পর্শে দুইজনের মৃত্যু

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি-নওগাঁর ধামইরহাটে বিদ্যুৎস্পৃর্শে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

জানাগেছে, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার আড়ানগর ইউনিয়নের অন্তর্গত গোকুল গ্রামের আলামিন হোসেন (২৪) নিজ বাড়ীতে বিদ্যুৎ লাইনের কাজ করছিল।

এসময় অসর্তকার কারণে বৈদ্যুতিক তারে সংস্পৃর্শে সে মারা যায়। আলামিন হোসেন ওই গ্রামের ছলিম উদ্দিনের ছেলে।

এ দিকে শুক্রবার বিকেলে উপজেলার আড়ানগর ইউনিয়নের আড়ানগর বাসিন্দাপাড়া গ্রামের মো.মিলন হোসেনের ছেলে স্বপন হোসেন (১২) নিজ বাড়ীতে বৈদ্যুতিক বাল্ব লাগাতে গিয়ে তারে সাথে জড়িয়ে মারা যায়।

নওগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ ধামইরহাট জোনাল ম্যানেজার মো.শাহীন কবির বলেন, বিদ্যুৎ একটি নিবর ঘাতক। তারপরও অনেকে একে অবহেলা করে নিজেরা বিভিন্ন ধরণের বৈদ্যুতিক কাজ করছেন। যা মোটেও নিরাপদ নয়।

এ ব্যাপারে ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো.আব্দুল মমিন বলেন, এ ব্যাপারে থানায় পৃথক দুটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ধামইরহাটে জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি-নওগাঁর ধামইরহাটে৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার দিবসটি পালন উপলক্ষে উপজেলা সমবায় কার্যালয় ও উপজেলাধীন বিভিন্ন সমবায় সমিতির যৌথ উদ্যোগে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে জাতীয় ও সমবায় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

পরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার গণপতি রায়ের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো.সোহেল রানা, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মো.হারুনুর রশীদ, সেলিম মাহমুদ রাজু প্রমুখ।

বিরামপুরে জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

নয়ন হাসান, বিরামপুর প্রতিনিধি-“বঙ্গবন্ধুর দর্শন সমবায়ে উন্নয়ন” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে ৪৯ তম জাতীয় সমবায় দিবস ২০ পালিত হয়েছে।
আজ ৭ (নভেম্বর) শনিবার বেলা ১১ টায় উপজেলা অডিটরিয়ামে সমবায় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকারের সভাপতিত্বে ও এ্যাকাডেমিক সুপারভাইজার আব্দুস সালাম এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, মেয়র লিয়াকত আলী সরকার টুটুল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেজবাউল ইসলাম মন্ডল,চেয়ারম্যান ইউ,সি,সি,এ, লিঃ বিরামপুর শাখার মোঃ রুহুল আমিন সরদার, বিরামপুর উপজেলা অটোবাইক মালিক চালক সমিতির সভাপতি শ্রীঃ শীবেশ কুমার কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক মুরাদ ইসলাম,উপজেলা যুব মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক আমেনা বেগম,৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিজানুর রহমান, প্রস্তমপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোকাররম হোহেন, বিরামপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান, দিনাজপুর সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট এর সভাপতি আকরাম হোসেন, বিরামপুর উপজেলা মাদক প্রতিরোধ ও জনকল্যাণ সংস্থার সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, শিক্ষক, সুধীজন,গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার দেশে উৎপাদন বৃদ্ধি ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত, শান্তিপূর্ণ ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে বদ্ধপরিকর। এ লক্ষ্য অর্জনে সমবায় সমিতি বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারে।